জুড়ী উপজেলা চেয়ারম্যানকে স্থানীয় সরকার বিভাগের শোকজ

প্রকাশিত: ৪:৫৫ পূর্বাহ্ণ, মে ৭, ২০২০

জুড়ী উপজেলা চেয়ারম্যানকে স্থানীয় সরকার বিভাগের শোকজ

বিশেষ প্রতিবেদক: জুড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ মোঈদ ফারুককে পোলট্রি খামারে হামলা, ভাঙচুর, ধান কাটার হারভেস্টার মেশিন ভাঙচুর এবং করোনা পরিস্থিতিতে গণজমায়েত সৃষ্টির অভিযোগে কারণ দর্শানোর চিঠি দিয়েছে স্থানীয় সরকার বিভাগ।

 

মঙ্গলবার (৫ মে) স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের (উপজেলা-২ শাখা) উপসচিব মোহাম্মদ জহিরুল ইসলামের সই করা একটি চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয় বলে গণমাধ্যমকর্মীদের বিষয়টি জানিয়েছেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরীন।

 

গত ৪ মে মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসকের পাঠানো চিঠির সূত্র ধরে স্থানীয় সরকার বিভাগের চিঠিতে বলা হয়েছে, ১ মে রাত ১০টায় উপজেলা চেয়ারম্যান এম এ মোঈদ ফারুকের নেতৃত্বে জুড়ী উপজেলার পশ্চিম জুড়ী ইউনিয়নের আমতৈল গ্রামে ‘বন্ধু পোলট্রি ফার্ম’ এ হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট; ধান কাটার হারভেস্টার মেশিনের যন্ত্রপাতি ভাংচুর এবং করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে গণজমায়াতের সৃষ্টি করা হয়। এ কারণে তাঁকে (উপজেলা চেয়ারম্যান) উপজেলা পরিষদ আইন-১৯৯৮ উপজেলা পরিষদ (সংশোধন) আইন, ২০১১ দ্বারা সংশোধিত এর ১৩ (খ) ও (গ) ধারা অনুযায়ী, কেন স্বীয় পদ থেকে অপসারণের কার্যক্রম শুরু করা হবে না-এ মর্মে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্য চিঠিতে বলা হয়েছে।

 

জুড়ীনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/ভিএসআরএস